মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০২:৩০ অপরাহ্ন

নাহিদের পর চলে গেলেন মোরসালিন

ডেস্ক রিপোর্ট: আলমগীর হোসেন
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২২
  • ৫০ Time View

নিউ মার্কেট এলাকায় ব্যবসায়ী ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত দোকান কর্মচারী মোরসালিন (২৬) মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) ভোর ৪টা ৩৬ মিনিটে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পুরাতন ভবনের জেনারেল আইসিইউর ২৩ নম্বর বেডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

মোরসালিনের মৃত্যুর তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর বাচ্চু মিয়া। সেই সঙ্গে মোরসালিনের শ্যালক ফরহাদ হোসেনের সাংবাদিকদের  তিনিও মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) নিউ মার্কেট এলাকায় দ্বিতীয় দিনের সংঘর্ষের সময় নুরজাহান মার্কেটের সামনে আহত হয়েছিলেন মোরসালিন। পরে মোরসালিনকে রক্তাক্ত অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।  বিভিন্ন গণমাধ্যমে জানা যায়

নিহত মোরসালিনের হুমাইয়া ইসলাম লামহা (৭) ও আমির হামজা (৪) নামে দুটি সন্তান রয়েছে।ঢাকায় পরিবারসহ বসবাস করতেন কামরাঙ্গীরচর পশ্চিম রসুলপুর এলাকায়। ।

তিনি কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার কালাইনগর গ্রামের বাসিন্দা। নিহতের গ্রামের বাড়ী কুমিল্লা জেলায় এটা নিশ্চিত হলেও কিন্তু তার উপজেলা নিয়ে ইতোমধ্যে নানা তথ্য পাওয়া গেছে দাউদকান্দি না তিতাসের এই নিয়ে জনমনেপ্রশ্ন রয়েই গেছে।সূচনা টিভি প্রতিনিধি টিম এই ব্যাপারে সঠিক তথ্যের জন্য চেষ্টা করছেন

মোরসালিনের স্ত্রী অনি আখতার মিতু জানান, নিউ মার্কেটে একটি শার্টের দোকানে মাসে ৯ হাজার টাকা বেতনে চাকরি করতেন তার স্বামী। সেই টাকা দিয়ে তাদের সংসার চলত। মঙ্গলবার সকালে নিউ মার্কেটে কর্মস্থলের উদ্দেশে তিনি বাসা থেকে বেরিয়ে যান।

একই  সংঘর্ষের ঘটনায় এর আগে নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় নাহিদ হাসান (১৮) নামে এক যুবকের।  

সোমবার দিনগত রাতে ফাস্ট ফুড দোকানে কথা কাটাকাটির জেরে নিউ মার্কেট এলাকায় ব্যবসায়ী ও ঢাকা কলেজের ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। এরপরদিন মঙ্গলবারও থেমে থেমে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষ চলে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Suchana Community TV
themebazsuchana231231