মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০২:৪০ অপরাহ্ন

এবার রেস্তোরাঁ খুলে দেওয়ার দাবি

Md Bijoy Habib
  • Update Time : সোমবার, ২ আগস্ট, ২০২১
  • ১৪৪ Time View

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে সরকার ঘোষিত চলমান বিধিনিষেধ (লকডাউন) আগামী ৫ আগস্ট শেষ হচ্ছে। এরপরই জীবন-জীবিকা বাঁচাতে আগামী শুক্রবার (৬ আগস্ট) থেকে সব ধরনের রেস্তোরাঁ খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ রেস্তোরা মালিক সমিতি।

সোমবার (২ আগস্ট) ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে সরকারের কাছে এ দাবি জানান তারা। এতে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান মালিক সমিতির মহাসচিব ইমরান হোসেন।

তিনি বলেন, করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরে হোটেল-রেস্তোরা বন্ধ রয়েছে। এর আগেও বিভিন্ন সময়ে রেস্তোরা বন্ধ ছিল। এতে হোটেল-রেস্তোরার সঙ্গে জড়িত প্রায় সবার জীবনই স্থবির হয়ে গেছে।
ইমরান হোসেন বলেন, একদিকে প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ আছে, কোনো আয় নেই। অন্যদিকে নিয়তিম দোকান ভাড়া পরিশোধ করতে হচ্ছে, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা দিতে হচ্ছে। এতে মালিকরা বেশ ক্ষতির মুখে পড়েছেন। সবমিলে লকডাউনে ৮০ থেকে ৯০ হাজার কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।
তাই হোটেল-রেস্তোরা খুলে দিতে সরকারের প্রতি আবেদন জানান এই ব্যবসায়ী নেতা।
এর আগে রোববার (১ আগস্ট) রাজধানীর নিউমার্কেটে দোকান মালিক সমিতির কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আগামী শুক্রবার (৬ আগস্ট) থেকে সব ধরনের দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বিপণিবিতান খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি।

সংবাদ সম্মেলনে দোকান মালিক সমিতির নেতারা দাবি করেন, দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ার পর গত ১৭ মাসের মধ্যে ২৭০ দিন দোকানপাট বন্ধ ছিল। এ সময়ে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির ৫৩ লাখ ৭২ হাজার ৭১৬টি দোকানের ক্ষতির পরিমাণ দুই লাখ ৭০ হাজার কোটি টাকা। এ ছাড়া বাংলাদেশ বস্ত্র ব্যবসায়ী সমিতির দেড় লাখ দোকানের ক্ষতি ২০ হাজার ৫০০ কোটি টাকা, বাংলাদেশ টাইলস ব্যবসায়ী সমিতির ১২ হাজার দোকানের ক্ষতি ১৫ হাজার কোটি টাকা। বাকি ক্ষতি হয়েছে অন্য ছয়টি সমিতির।
দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন বলেন, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের অবস্থা খুব খারাপ। দোকান বন্ধ। তাদের আয়ও বন্ধ। তাদের জীবন এখন থমকে গেছে। তাই সরকারের প্রতি আমরা আবেদন করেছি এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার।
এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন দোকান মালিক সমিতির মহাসচিব জহিরুল হক ভূঁইয়া, ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি রফিউজ্জামান, বাংলাদেশ টাইলস ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রসুল বেলালসহ অন্যরা।
করোনা সংক্রমণ রোধে সরকার গত ১ জুলাই থেকে কঠোর বিধি-নিষেধের ঘোষণা দেয়। তবে ঈদুল আজহার জন্য ১৯ জুলাই থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত বিধিনিষেধ কিছুটা শিথিল করা হয়। এরপর আবার ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট কঠোর লকডাউনের ঘোষণা দেয় সরকার। তবে ১ আগস্ট থেকে কারখানা খুলে দেওয়া হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Suchana Community TV
themebazsuchana231231