শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪৩ অপরাহ্ন

কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি উপজেলার গোপচর গ্রামের জনগণ ফুঁসে উঠেছে

বিল্লাল মোল্লা
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই, ২০২০
  • ৫৪২ Time View

কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি উপজেলার গোপচর গ্রামের জনগণ ফুঁসে উঠেছে মান্নানের নাতনীদের অসামাজিক কার্যকলাপের কারনে। গোপচর গ্রামে আব্দুল মান্নানের মেয়ে মিনু স্বামীর সংসার থেকে তালাক নিয়ে তাহার তিন মেয়ে নিয়ে বাপের বাড়িতে বসবাস করে আসছে। বড় মেয়ে সান্তা ইসলাম,মেজ মেয়ে সুচি ইসলাম, ছোট মেয়ে মহিমাদের নিয়ে দির্ঘদিন বসবাস করে আসছে। বুধবার ১৫,ই জুলাই বিকাল ৫ ঘটিকার সময় গোপচর গ্রামের জনসাধারণ তাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে তাদের বিরুদ্ধে গ্রামবাসী বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ করে। গ্রামের সাধারণ জণগন অভিযোগ করেন গ্রামের লোকজনের সাথে প্রতিনিয়তই সব সময় খারাপ আচরণ করে আসছেন আব্দুল মান্নানের স্ত্রী সহ তার মেয়ে নাতনীরা। এমনটাই অভিযোগ করছেন গোপচর গ্রামবাসীরা, তাদের সাথে কেউ ঝগড়া করলে বা সামান্য বিষয়ে কথা-কাটাকাটি হলে মামলার ভয়-ভীতি দেখান এবং মামলা দিয়ে মানুষকে হয়রানি করে বিভিন্ন সময়ে নাজেহাল করেন। বক্সপপ: গ্রামবাসীর বক্তব্য: তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই এমনটাই দাবি করেন মান্নানের স্ত্রীর আপন দুই ভাই মোঃ ইদ্রিস আলী ও লিয়াকত আলী, ইদ্রিস আলী বলেন তাদের অসামাজিক কার্যকলাপে মনে চায় লজ্জায় আত্মহত্যা করি। মিনুর মেয়েদের অসামাজিক কার্যকলাপে গোপচর গ্রামের মানুষ আমাদের নিকট প্রতিদিন একটা না একটা বিচার নিয়ে হাজির হয় আমাদের দরজায়, আমরা এখন পাগল হওয়া ছাড়া আর কোন পথ নেই। আরেক ভাই লিয়াকত আলী বলেন স্বপ্নেও কল্পনা করি নাই আমার ভাগ্নির ঘরের মেয়েরা যে এত উশৃংখল হবে এবং তারা যে এত বেহায়াপনা কাজকর্ম করবে ।, লজ্জায় বলতে পারিনা,কি এমন অপরাধ করেছিলাম আল্লার কাছে যে আমার বোনের ঘরের মেয়ের নাতনীরা এমন বাজে চরিত্রের হবে। তিনি আরো বলেন রাত দশটার পরে আমার বোনের ঘরে ছেলেমেয়েদের আড্ডার আসর বসে, তাদের প্রধান দালাল হচ্ছে আমারই আরেক ভাগ্নির জামাই আব্দুল কাদের সেই বিভিন্ন সময় তার গাড়িতে করে বিভিন্ন ছেলেদেরকে নিয়ে আসে,এবং রাত্রে অসামাজিক কার্যকলাপ করে থাকে। আমি অনেকবার বাধাপ্রদান করেছি কিন্তু আমাকে মামলার ভয় দেখায় প্রতিনিয়ত। মোঃ কালু মিয়া বেপারী তিনি অভিযোগ করেন তাদের বিরুদ্ধে কিছুদিন আগে গ্রামে দরবার ডাকা হয় আমি তাদেরকে ভালো ভালো কথা বলছিলাম কিন্তু হঠাৎ করে আব্দুল মান্নানের স্ত্রী শানু বেগম উপস্থিত দরবারিদের সামনে আমার গালে থাপ্পড় মেরে বসেন। তাদের অত্যাচারে সমাজ ও গ্রামবাসী অতিষ্ঠ । গ্রামের সাধারণ জনগণ আরো অভিযোগ করেন মিনুর মেয়েদেরকে দিয়ে পতিতাবৃত্তি করে কাড়ি কাড়ি টাকা কামাচ্ছে এবং মেয়েদেরকে দিয়ে ফেসবুকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করে বিভিন্ন প্রবাসী ছেলেদেরকে প্রেম ও বিয়ের ফাঁদে ফেলে সর্বস্ব লুটে নিচ্ছেন একেকটা মেয়ের তিনটে চারটে করে বিয়ে হয়েছে। এ ব্যাপারে জিংলাতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আলমগীর হোসেন মোল্লা বলেন সিং- আলমগীর হোসেন মোল্লা-চেয়ারম্যান জিংলাতলী ইউনিয়ন পরিষদ । এ বিষয়ে মান্নানের সাথে কথা বললে তিনি এইসব অভিযোগের কথা অস্বীকার করেন এবং তার স্ত্রী শানু বেগম ও মেয়ে মিনু অস্বীকার করেন,তারা বলেন সব সাজানো নাটক। আমরা সুষ্ঠু বিচার চাই, আমাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে একটি মহল।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Suchana Community TV
themebazsuchana231231