বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০২:৩০ পূর্বাহ্ন

করোনাভাইরাস: চীনে কি পর্যাপ্ত মাস্ক আছে

ডেস্ক নিউজ:
  • Update Time : শুক্রবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ২১১ Time View

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষাপটে চীনা কর্তৃপক্ষ মুখে ব্যবহারের মাস্ক চেয়ে অন্য দেশগুলোর সহায়তা কামনা করেছে। কিন্তু চীনের কত মাস্ক দরকার এবং এগুলো কোথায় উৎপাদিত হয়। যদিও বিশেষজ্ঞরা বরাবরই এসব মাস্কের কার্যকারিতা নিয়ে সন্দিহান, তারপরেও মুখ ঢাকার মাস্ক সাধারণ মানুষ ও হাসপাতাল স্টাফরা ব্যাপকভাবে ব্যবহার করছে। চীনে ভাইরাস এমনভাবে ছড়িয়েছে যে আক্রান্ত কত জন সেটি নিশ্চিতভাবে বলা কঠিন। কিন্তু একটি আইডিয়া পাওয়ার জন্য হুবেই প্রদেশের অবস্থা দেখা যেতে পারে, যেখান থেকে ভাইরাসটি ছড়িয়েছে বলে মনে করা হয়। পুরো প্রদেশে মেডিকেল স্টাফ আছে প্রায় পাঁচ লাখ। চীনে স্বাস্থ্য উপদেশ হিসেবে প্রতিনিয়ত মাস্ক পরিবর্তনের পরামর্শ দেয়া হয়। মেডিকেল টীমের জন্য এটি দিনে চারবার। এর মানে হলো প্রতিদিন বিশ লাখ মাস্ক দরকার শুধু মেডিকেল স্টাফদের জন্য। এটা হলো উহানের অন্যতম প্রধান একটি হাসপাতালে অনুসরণ করা একটি প্রক্রিয়া। ভাইরাস আক্রান্ত অন্য প্রদেশগুলোর তথ্য এ মূহুর্তে নেই কিন্তু ধারণা করা যেতে পারে সেখানকার অবস্থাও একই রকম। •তবে প্রায় পাঁচ লাখ গণপরিবহণ কর্মীকে মাস্ক পরিধান করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে •এছাড়া দোকান, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও আরো কিছু পাবলিক প্লেসে জনসাধারণকে মাস্ক ব্যবহার করতে বলা হয় ভেতরে প্রবেশের শর্ত হিসেবে এরপর দেশটিতে সাধারণ মানুষের মধ্যেও ব্যাপকভাবে মাস্ক ব্যবহারের প্রবণতা আছে সেটি স্বাস্থ্য বিষয়ক পরামর্শে থাকুক আর না থাকুক। তাই এটি বলা খুবই কঠিন যে আসলে কত মাস্ক দেশটিতে দরকার হয়। তবে এটি পরিষ্কার যে এর চাহিদা ব্যাপক এবং সেটিও বাড়ছে। আর এবার নববর্ষের ছুটির পর কাজে ফেরা মানুষের জন্য এ সংখ্যা আরও বেড়ে যাচ্ছে।
কত মাস্ক চীনে উৎপাদন হয়? সাধারণ পরিস্থিতিতে চীনে প্রতিদিন দুই কোটির মতো মাস্ক উৎপাদিত হয়, যা পুরো বিশ্বের দৈনিক উৎপাদনের অর্ধেক। তবে দেশটিতে নববর্ষের ছুটি আর করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষাপটে মাস্কের উৎপাদন এখন অর্ধেকে নেমে এসেছে। ফলে এখন যা পাওয়া যাচ্ছে তা চাহিদা মেটাতে যথেষ্ট নয়। বিশেষ করে মানসম্পন্ন মাস্ক যা বেশি কার্যকর এবং এখন যেটি বেশি প্রয়োজন। এর মধ্যে একটি হলো এন৯৫ রেসপিরেটর যা এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যাতে করে বাতাসে থাকা ৯৫ভাগ কণাকে ফিল্টার করতে সক্ষম। এগুলো সাধারণ সার্জিক্যাল বা মেডিকেল মাস্কের চেয়ে ভালো, তবে এটিও বারবার পরিবর্তন করতে হয়। দেশটির শিল্প মন্ত্রণালয়ের হিসেব অনুযায়ী চীন এখন প্রতিদিন প্রায় ছয় লাখ উঁচু মানের মাস্ক উৎপাদন করছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Suchana Community TV
themebazsuchana231231